চাপের কারণগুলি চিহ্নিত করুন এবং সেগুলি দূর করার চেষ্টা করুন

মানসিক চাপের কারণগুলি ব্যক্তিভেদে ভিন্ন হতে পারে।কাজের চাপ, পারিবারিক সমস্যা, অর্থনৈতিক সমস্যা, শারীরিক অসুস্থতা ইত্যাদি । চাপের কারণগুলি চিহ্নিত করে সেগুলি দূর করার চেষ্টা করুন।

নিজের সীমাবদ্ধতা বুঝে কাজ করুন

নিজের সীমাবদ্ধতাগুলি বুঝতে পারলে সেগুলির মধ্যে থেকে কাজ করা সম্ভব। নিজের ক্ষমতার বাইরে কাজ করার চেষ্টা করলে মানসিক চাপ বেড়ে যেতে পারে।

পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমান

পর্যাপ্ত ঘুম মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই পর্যাপ্ত ঘুম আপনার মানসিক চাপ কে কমাতে পারে।

নিয়মিত ব্যায়াম করুন

ব্যায়াম করলে শরীরে এন্ডোরফিন হরমোন নিঃসৃত হয়, যা মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে।

স্বাস্থ্যকর খাবার খান

স্বাস্থ্যকর খাবার খেলে মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতি হয়। অস্বাস্থ্যকর খাবার খেলে মানসিক চাপ বেড়ে যেতে পারে 

প্রিয়জনদের সাথে সময় কাটান

প্রিয়জনদের সাথে সময় কাটালে মানসিক চাপ কমে। প্রিয়জনদের সাথে কথা বললে মন ভালো হয় এবং  নেগেটিভ চিন্তা দূরে থাকে

গান শুনুন বা গান করুন

গান শুনলে বা সঙ্গীত করলে মানসিক চাপ কমে। গান শোনার সময় মজার বা আনন্দদায়ক গান শোনা উচিত

প্রকৃতির সাথে সময় কাটান

প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করলে মন ভালো হয় এবং  তার সাথে নিজেকে অনেকটা টাইম দেয়া যায়।

নিয়মিত ধ্যান ও মেডিটেশন করুন 

ধ্যান করার সময় নিজের মনকে শান্ত রাখতে হবে | ধ্যানের মধ্যে দিয়ে আপনার কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায় এবং মানসিক চাপ থেকে মুক্ত হওয়া যায়।